ফেসবুক-ম্যাসেঞ্জার ডাউন, ভোগান্তিতে অনলাইন উদ্যোক্তারা

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সাবেক সভাপতি এবং ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আজকের ডিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফাহিম মাশরুর বলেন, দেশে অনলাইন কেনাকাটার প্রায় অর্ধেক ফেসবুককেন্দ্রিক বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে হয়ে থাকে। ফেসবুক বিভ্রাটে ছোট ছোট অনলাইন উদ্যোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

ফেসবুক ও ম্যাসেঞ্জার ব্যবহার করতে গিয়ে গত শুক্রবার বিকেল থেকে সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে দেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা। ফেসবুক কখনো ডাউন, আবার কখনো বন্ধ থাকায় লগ ইন করা, পোস্ট দেওয়া এবং মেসেঞ্জার ব্যবহার করে কোনো কিছু পাঠানোর ক্ষেত্রে ভোগান্তিতে পড়েছে তারা। তবে বিশ্বের ওয়েবসাইট ডাউন মনিটরিং সাইট ‘ডাউন ডিটেক্টরে’ বিশ্বের কোথাও ফেসবুক ব্যবহারে বিপত্তির তথ্য নেই।

শুধু দেশে এই সমস্যা কেন হচ্ছে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার গতকাল রবিবার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরামর্শে ফেসবুক সেবা সীমিত আছে। এখনো যে অবস্থা আছে তাতে কখন ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আমার তা জানা নেই। যে অবস্থা আজকেও গেছে, তাতে মনে হচ্ছে কিছুটা সময় হয়তো লাগতেও পারে।’

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা কিছু ব্যক্তিগত অসুবিধার চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। প্রথম দিন তারা যে লাইভ অনুষ্ঠানগুলো করেছে, এগুলো ব্যাপক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ অন্যান্য সংস্থা যখন ভালো মনে করবে তখন ফেসবুক স্বাভাবিক হবে।’

যোগাযোগ করা হলে ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা অবগত আছি যে বাংলাদেশে আমাদের সেবাগুলো সীমিত রাখা হয়েছে। আমরা বিষয়টি বোঝার চেষ্টা করছি। আশা করছি শিগগির পুরোদমে আবার এগুলোর ব্যবহার স্বাভাবিক হবে।’ এদিকে মোবাইল অপারেটর সূত্র জানায়, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে মোবাইল অপারেটরগুলোকে সংশ্লিষ্ট এলাকায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

Read More
admin March 29, 2021 0 Comments

Unblock Domain Or Website URL On Facebook In Less Than 24 Hours

Facebook URL blocked community standards. Don’t Worry our team will unblock your Domain or Website’s URL from Facebook in Less Than 24 Hours then you will be able to Post on Facebook without any restriction..! 

  • 100 % Quality work.
  • 100 % Unlimited Revisions.
  • 100 % Fast and Reliable Communication.
  • 100 % VIP support
  • 100% Satisfaction Guaranteed

I recommend you to used the Facebook Debugger tool before submitting the order. But if your website was still blocked just contact with me. I will try my best to help you to unblock your website (100% Guaranteed)

Requirements : Just Need Website url

Thanks

Nurul Islam Mamun

Web Developer, Graphic Designer & Digital Marketing Expert

+88 01682409948 | islammamun1286@gmail.com

classicalit.com
 Dhaka, Dhaka Division, Bangladesh

Read More
admin March 11, 2021 0 Comments

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন? সম্ভাবনা ও ঝুঁকি!

একটি পণ্য বা সেবা তৈরির পর কোনো প্রতিষ্ঠানের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো সেটি গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দেওয়া। আর এই কাজটি সহজে করার জন্য প্রতিষ্ঠানগুলো নির্ভর করে থাকে বিজ্ঞাপনের উপর। বিজ্ঞাপনের জন্য সবচেয়ে প্রচলিত মাধ্যম হলো টিভি, রেডিও কিংবা বিভিন্ন সংবাদপত্র। তবে সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে বিজ্ঞাপন মাধ্যমেও এসেছে পরিবর্তন। বর্তমানে মানুষ টিভি কিংবা সংবাদপত্রের তুলনায় বেশি ব্যবহার করছে স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, আর এর সাথে ইন্টারনেট তো থাকছেই। মানুষের দৈনন্দিন কাজের পাশাপাশি একটি বড় সময় কাটছে ফেসবুক, টুইটারসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ফলে বিজ্ঞাপনদাতাদের চাহিদায়ও এসেছে পরিবর্তন। এখন বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের জন্য তাদের পছন্দের শীর্ষে আছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, গুগল, ইউটিউব, অ্যাপ প্রভৃতি। এক কথায় যা ‘ডিজিটাল মার্কেটিং’ নামে পরিচিত।

স্বল্প বাজেটের বিজ্ঞাপনে অনেক মানুষের কাছে পৌঁছানো যায় এবং নির্দিষ্ট ভোক্তা শ্রেনিকে লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপন প্রচার করা যায় বলে বর্তমান সময়ে ক্ষুদ্র ও মাঝারী প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি বড় প্রতিষ্ঠানগুলোও ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে আগ্রহী হচ্ছে।

ডিজিটাল মার্কেটিং করার জন্য অনেকগুলো পদ্ধতি রয়েছে। কিন্তু এমন কিছু পদ্ধতি রয়েছে যেগুলো আমাদের ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে লাগবেই।  ডিজিটাল মার্কেটিং এ যে বিষয় গুলো সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় সেগুলো সম্পর্কে।

  • SEO (Search Engine Optimization) 
  • SMM (Social Media Marketing)
  • Online Advertising
  • Email Marketing
  • Affiliate Marketing
  • Content Marketing

✔️ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন ( SEO ) ‍ :

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা SEO মূলত গুগল, ইয়াহু বিং বা অন্য কোনো সার্চ ইঞ্জিন অনুসন্ধান ফলাফলগুলো আপনাকে খুঁজে বের করে দিবে।  আজকের প্রতিযোগিতার বাজারে পণ্যের বা নিজের প্রচারের ক্ষেত্রে এসইও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

এসইওর মাধ্যমে আপনার পণ্যকে বা আপনাকে গুগল সার্চের সবচেয়ে ওপরে নিয়ে আসবেন, তাহলে আপনার পণ্যের বিক্রিও বৃদ্ধি বা আপনার নিজের প্রচার বৃদ্ধি ( personal branding ) পাবে কারণ বর্তমানে মানুষ কোনো পণ্য কেনার আগে কিংবা কোন ব্যক্তির সম্পর্কে জানতে গুগল থেকে সার্চ দিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। গুগল তার তথ্যগুলো নিয়মিত আপডেট করে।

✔️ সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ( SMM )
ফেসবুক একটি মহান বিজ্ঞাপন প্ল্যাটফর্ম। যার মাধ্যমে আপনি আপনার Target audience এর আছে খুব সস্তা এবং কার্যকর পদ্ধতিতে পৌঁছাতে পারেন।
আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং জগতে টুইটারকে উপেক্ষা করেন তবে আপনি একটি বড় ভুল করেছেন। এই মুহুর্তে টুইটারের 300 মিলিয়ন ব্যবহারকারীর বেশি আছে। এবং প্রতিদিন অনেক ব্যবহারকারী এটি যোগদান করছেন, তাই এটি ফেসবুক মত ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের জন্য একটি ভাল প্ল্যাটফর্ম।
এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোকে কাজে লাগিয়ে মার্কেটিং করা বা যে পদ্ধতি অনুসরণ করে আমরা প্রচারণা করি তাকেই সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং বলে।
                  #সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং দুই প্রকার।
                                         * Paid Marketing (টাকা দিয়ে পেজ অথবা গ্রুপকে প্রমোট করে)।
                                         * Free Marketing (পাবলিক গ্রুপ ও পাবলিক পেজ এ পোস্ট অথবা কমেন্ট এর মাধ্যমে)।
১। পরীক্ষা মূলকভাবে দিনের ভিন্ন ভিন্ন সময়ে পোস্টঃ
অধিকাংশ ব্যবসায় কোম্পানিগুলোই ফেসবুকে তাদের পোস্তগুলো ট্র্যাডিশনাল বিজনেস আওয়ারে পোস্ট করে থাকেন। কিন্তু আপনার ভিজিটরদের একটা বড় অংশ বিদেশে থাকলে তখন কি হবে ? সেক্ষেত্রে আপনি দিনের বা রাতের ভিন্ন ভিন্ন সময়ে পোস্ট করে দেখতে পারেন । সেটা অবশ্যাই ভিন্ন ভিন্ন ফলাফল নিয়ে আসবে। এটা নির্ভর করবে আপানার পণ্যের ইউজারদের ধরনের উপর।  অবশ্যই অটোমেটেড পোস্ট থেকে বিরত থাকা উচিত। দরকার হলে আপনি ফেসবুকের শিডিউল টুলটি ব্যাবহার করতে পারেন ।.এখানে একটা ব্যাপার মাথায় রাখতে হবে। যখন একটা নতুন পোস্ট হবে আপনার অডিয়েন্স আশা করবেন যে, কেউ একজন জীবিত ( জাগ্রত ) আছেন । সেক্ষেত্রে আপনি যখন তাৎক্ষণিক ভাবে তাদের প্রশ্নের উত্তর বা কুইরির রিপ্লাই দিতে পারবেন না , তখন তারা বুজে যাবে আপনি মৃত (ঘুমন্ত)। সেটা আপনার জন্য একটি নেগেটিভ ফলাফল নিয়ে আসবে।
২। ভিজিটরদের কে আলোচনার সুযোগ দিনঃ
আপনি হয়ত নতুন একটি পণ্য বা নতুন কোন ডিজাইন নিয়ে আসতে চাচ্ছেন । সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ফ্যানদের থেকে তাদের ফিডব্যাক নিতে পারেন। আপনি হয়ত তাদের মাজে একটা জরিপ চালাতে পারেন বা ভোটের মাধ্যমে আপনার নতুন লোগোও বা পণ্যের রং সম্পর্কে তথ্য নিতে পারেন যা আপনাকে আপনার ব্যবসায় কে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে সাহায্য করবে। এটা শুদু আপনার পণ্যের ব্র্যন্ড লয়ালিটি বৃদ্ধি করবে না ,এটা আপনার ফ্যানরা কি চাচ্ছে সে সম্পর্কে ও আপনাকে পরিস্কার ধারনা দিবে।
৩। ছবি ব্যবহার করুন – কেননা এটা বেশি দিন স্থায়ী হয়ঃ
ইমেজ সাধারণত বেশি শেয়ার করা হয়ে থাকে । এক গবেষণায় দেখা গেছে শুদুমাত্র টেক্সট বা লিঙ্ক এর চেয়ে ইমেজ পোস্ট ২ গুন বেশি এনগ্যাগম্যান্ট পেয়ে থাকে। এজন্য আপনাকে দামি ডি এস এল আর ক্যামেরা কিনতে হবে না। আপনি আপানর স্মার্ট ফোনে ইনস্টাগ্রাম ডাউনলোড করে নিয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে স্ন্যাপ নিতে এবং আপনার ফেকবুক পেজে আপলোড দিতে পারেন। শেয়ার করতে পারেন ভিডিও ও।
৪। আপনি নিজে নিজের সবচেয়ে বড় ফ্যান হউনঃ
সাম্প্রতিক ট্রেন্ড বা ফ্যাড সম্পর্কে জানতে আপনার বিজনেস পেইজের বাইরের ফেসবুক কে ভালভাবে বুঝতে হবে। তাই যদি ইতিমধ্যেই আপনার একটি ব্যাক্তিগত একাউন্ট না থাকে আপনি আজই একটি একাউন্ত খুলে নিতে পারেন। এটা আপনাকে আপনাকে ফ্যানদের চোখে আপনার ব্যাবসায় কে দেখার সুযোগ করে দেবার পাশাপাশি আপনার কমপিটীটরা কি করছে টা দেখার এবং অন্যান্য ইউজার দের সম্পর্কে ধারনা নেবার সুযোগ করে দিবে।
৫। ফেসবুকের বাইরেও আপনার ফ্যানদের সাথে যোগাযোগ রাখুনঃ
এটা আপনি আপানর ইমেইল লিস্ট দিয়ে করতে পারেন। আপনি ইউজারদের কে আপনার মেইল লিস্ট এ নাম লিপিবদ্দ করার জন্য তাদের কে ইনসেন্টিভ দিতে পারেন। আপনার ফেসবুক পেইজে প্রাসঙ্গিক ও মজার কন্টেন্ট পোস্ট করুন।
৬। কল টু একশান ব্যবহার করুনঃ
যেহেতু আপনি চান না ইউজার একবার মাত্র আপনার সাইট ভিজিত করে চলে যাক , তাই আপনি আপনার পেজের ট্যাবে একটি “কল টু একশান ” গ্রাফিক ব্যাবহার করতে পারেন। এটা লাইক বাটনের পাশে “লাইক আস” এর মত সাধারন হতে পারে । ভিসিটররা যেন খুব সহজে আপনার ফ্যান এর পরিণত হয়ে তাদের ফিডে আপনাকে এড করে তার জন্য তাদেরকে সব রকমের সুজোগ দিন।
৭। হাইড এন্ড সিক খেলাঃ
আপনার যা আছে তার চাহিদা তৈরি করুন। ভিসিটরদের জন্য কন্টেন্ট তৈরি করুন তাহলে তারা আপনার পেইজে লাইক দিতে উৎসাহিত হবে। এগুলো হতে পারে বিশেষ কোন পণ্যের তথ্য, সাক্ষাৎকার, মেনু ইত্যাদি যা কিছু আপনার ব্যাবসার সাথে যায়।
বেশ কিছু উপায় আছে এটা করার (সেগুলো ও ক্রমাগত পরিবর্তন হচ্ছে) যেমনঃ এপস অব কাস্টম এফ বি এম এল (ফেসবুক মার্ক আপ ল্যাঙ্গুয়েজ)।এগুলর কোন কোনটা তে যারা আপনার পেইজে লাইক দিবে তাদের কে ইক্লুসিভ কন্টেন্ট এ এক্সেস পাবার অপশান রয়েছে ।
৮। সহজ ইউ আর এলঃ
আপনার বিজনেস পেজের জন্য একটি ভ্যানিটী ইউ অর এল তৈরি করতে পারেন। এটা আপনার ফ্যানদের কে আপনার পেইজ টি আরও সহজে খুজে পেতে সাহায্য করবে।
৯। সাপ্তাহিক পিন পোস্ট করুনঃ
পিন্টারেস্ট এর পিন এর সাথে একে মেলাবেন না। ফেসবুক আপনার ব্যাবসার কোন পোস্ট কে সপ্তাহের জন্য জন্য ফিচারড পোস্ট করে আপনার পেইজের উপরে রাখার সুযোগ দেয়। তাই যে তথ্য কে আপনি চাচ্ছেন পুস করতে। সেটা হতে পারে সেল , প্রমোশন বা কোন ইভন্ট সেগুলো কে আপনি পেইজের উপরে রাখতে পারেন। পিন করতে আপনি নির্বাচিত পোষ্টে হোভার করে পেনসিল আইকন এ ক্লিক করে “পিন টু পোস্ট” সিলেক্ট করুন।
১০। মাইলস্টোন প্রদর্শন করুনঃ
শুদুমাত্র আপনার রিলেশান শিপ আপডেট বা গ্রাজুয়েশন ই ফেসবুক মাইলস্টোন নয় । আপনি আপনার কোম্পনির বিভিন্ন অর্জন গুলোকে তুলে ধরতে পারেন সেটা হতে পারে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী, নিদিষ্ট সংখ্যক ফ্যান এর লক্ষ্য পুরন অথবা নতুন কোন পণ্য সুচনা।
পোস্ট টি ভাল লেগে থাকলে লাইক দিয়ে , শেয়ার করে লেখক কে উৎসাহিত করতে পারেন। যেন ভবিষৎতে আরো ভাল কিছু নিয়ে আসতে পারি ।
✔️ ইমেইল মার্কেটিং বা ইমেইল বিজ্ঞাপন
এর মাধ্যমে আপনি ইমেজ, ভিডিও বা জিআইএফ বা এইচটিএমএল সরাসরি আপনার ইমেইলের ইনবক্সে তথ্য পাঠান যা বিক্রয় এবং ট্রাফিক বৃদ্ধি করে।

✔️ কোনদিকে যাচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং :

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন? সম্ভাবনা ও ঝুঁকি!

বর্তমান বিশ্বের শীর্ষ দুই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম গুগল আর ফেসবুককে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপসহ বিভিন্ন স্থানে নানা অভিযোগ আর কড়াকড়ির মধ্য দিয়ে পাড়ি দিতে হচ্ছে। দুই জায়ান্ট ভোক্তাপণ্য বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান প্রক্টর অ্যান্ড গ্যাম্বল এবং ইউনিলিভার ইতিমধ্যে অনলাইন বিজ্ঞাপন নিয়ে জালিয়াতির বড় অভিযোগ পেয়েছে। অনুপযুক্ত অনলাইন কন্টেন্টের সামনে বিজ্ঞাপন দেখানো হলে ব্র্যান্ডের সুনাম ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে।

এ বিষয়টি বিপণনকারীদের হতাশও করে দিয়েছে আর গ্রাহকদের লক্ষ্য করার ক্ষেত্রে আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ আনতে তাদের উৎসাহ জোগাচ্ছে। অন্যদিকে ক্রমবর্ধমান এ বাজারে নিরাপত্তা নিয়ে পদক্ষেপ নেয়ার দরকারও তৈরি হচ্ছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, সামাজিক মাধ্যম, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা অ্যামাজনের অ্যালেক্সার মতো ভয়েস অ্যাকটিভেটেড অ্যাসিস্ট্যান্টের মাধ্যমে সরাসরি ভোক্তাদের লক্ষ্য করতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সুযোগ দিচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং বা ‘মারটেক’।

ফলে এ খাতের চাহিদাও বাড়ছে। ‘প্ল্যাটফর্ম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো এখন বিপণনকারীদের জন্য ‘ওয়ান-স্টপ’ শপিং ব্যবস্থা আনছে, যা দেখার মতো আরেকটি ‘ট্রেন্ড’ হতে যাচ্ছে এমনটাই গবেষক ডেমিয়েন রায়ানের গবেষণায় উঠে এসেছে।

ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে সবচাইতে বেশি মানুষের কাছে পণ্যের প্রচার করা যায়, এবং ডিজিটাল মার্কেটিংয়েই সবচাইতে বেশি ব্যবসায়িক সফলতা পাওয়া যায়। অনেক ধরণের ব্যবসা আছে যে গুলো গড়েই উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংকে কেন্দ্র করে। খুব সহজে ক্রেতার কাছে পৌঁছানো যায় বলে, অনলাইন ব্যবসায়ীদের জন্য তো অবশ্যই।

(more…)

Read More
admin March 11, 2021 0 Comments